কিভাবে নিবেন হানিমুনের প্রস্তুতি?

কিভাবে নিবেন হানিমুনের প্রস্তুতি?

দাম্পত্য জীবনের শুরুটা হতে হয় বিবাহ নামক এক পবিত্র বন্ধনের মাধ্যমে । আর বিয়ে করে ফেলা চাট্টিখানি কথা নয়, এর জন্য রয়েছে আলাদা প্রস্তুতি। তবে আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় বিয়ে নয়। বিয়ের সাথে হানিমুন বা মধুচন্দ্রিমা ওতপ্রোত ভাবে জড়িত । একটি রোমান্টিক, রোমাঞ্চকর এবং স্মরণীয় হানিমুন হওয়া জরুরী । হানিমুনের প্রস্তুতি কিন্তু হুট করেই হয়ে যায় না, এর জন্য প্রয়োজন একটা সুন্দর পরিকল্পনা এবং ঝামেলা মুক্ত গন্তব্য। বিয়ের মত হানিমুন ও কিন্তু কম গুরুত্ব পূর্ণ নয়। দুজন দুজনকে জানার ,কাছে আসার জন্য মধুচন্দ্রিমা বেশ গুরুত্ব বহন করে থাকে। হানিমুনে যাবেন আর কিভাবে কি করবেন তা নিয়েই আমাদের আজকের বিস্তারিত আলোচনা।

১. প্রথমেই দুজন মিলে ঠিক করে নিন কোথায় যাবেন, কতদিন থাকবেন এবং নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী ঠিক করে নিন কিভাবে হানিমুনের দিন গুলো কাটাবেন।

২.বিয়ের ডেটের সাথে মিলিয়ে হানিমুনের একটা ছক কষে নিন,বিস্তারিত খরচ এবং গন্তব্যের আবহাওয়া এবং ওখানের বিস্তারিত জেনে নিতে ইন্টারনেট অথবা ট্রাভেল জার্নালের সাহায্য নিন।

৩.দেশের বাহিরে যাওয়ার প্ল্যান থাকলে আগে থেকেই পাসপোর্ট, টিকিট এবং ভ্রমনের তারিখ ঠিক করে নিন,এক্ষেত্রে ট্রাভেল এজেন্সীর হেল্প নিতে পারেন,অথবা নিজের পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকলে সেটা কাজে লাগাতে পারেন, আগে থেকেই টিকিট কেটে রাখলে টাকা সেভ হওয়ার সম্ভবনা থাকে।

৪.অতিরিক্ত লাগেজ নেয়া থেকে বিরত থাকুন, প্রয়োজনীয় জামা-কাপড়, পরিবেশ অনুযায়ী জুতা, স্মার্ট ফোনের চার্জার,প্রাথমিক চিকিৎসার ওষুধ, হেডফোন,ছবি তোলার জন্য ক্যামেরা এবং নিত্য প্রয়োজনীয় প্রসাধনী মনে করে গুছিয়ে নিন কোন কিছু বাদ গেল কিনা ডবল চেক করে নিন।

৫. ভ্রমনের সকল কাগজ পত্র, বাস/ট্রেন/প্লেন এর টিকিট,পাসপোর্ট,জাতীয় পরিচয়পত্র হোটেল বুকিং এর যাবতীয় কাগজপত্র ফটোকপি করে বাসায় রেখে যান, যাতে যেকোনো সমস্যায় পরিবারের সাহায্য প্রয়োজন হলে পেতে পারেন।

৬. যে ওষুধ যতই নিন না কেন সঙ্গে এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিলস রাখবেনই ৷ যদি নিতে ভুলেও যান, তাহলে নেমেই কিনে নিন ৷ আনতে ভুলে গিয়েছেন বলে এনজয় করবেন না, তেমনটা তো আর নববিবাহিত দম্পতিরা মানবেন না এবং অবশ্যই এক প্যাকেট কনডম রাখবেন ৷ একটু ব্যতিক্রমী রোমাঞ্চ চাইলে ফ্লেভার্ড কনডমও রাখতে পারেন ৷

৭. নিজেকে আত্মবিশ্বাসী রাখুন ৷ কে কী কী জিনিসের দায়িত্বে থাকবেন, তা দুজনে ঠিক করে রাখুন ৷ দরকারে করে ফেলুন ছোট একটা লিস্ট ৷ আর কোনও কিছু ভুলে গেলও চিন্তা নেই, গিয়ে কিনে নেবেন ৷

৮. সেন্টেড সাবান, চকোলেট সস, রোমান্টিক মিউজিক সিডি, রুম স্প্রে ছাড়া আপনার হানিমুনটা একেবারেই নিরামিশ হয়ে যাবে ৷ তাই এগুলো ভুলবেন না ৷

দেশে কিংবা দেশের বাহিরে যেখানেই যান, সঠিক ডায়েট মেইনটেইন করে চলবেন। ক্লান্তিকর ভ্রমণ যেন আপনাকে কাবু করে ফেলতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন, সঙ্গীনির পছন্দ ও লক্ষ্য রাখুন। যেহেতু নতুন জায়গায় যাচ্ছেন খাবারের ব্যাপারে সতর্ক থাকবেন। রাতে চলাচলে সতর্ক থাকবেন এবং স্থানীয় পুলিশের নাম্বার সাথেই রাখবেন। মূল্যবান সামগ্রী হোটেল বা রুমের লকারে রাখাটাই শ্রেয়।

Comments
No comment yet