বিয়ের সাজে ১০টি মহামূল্যবান টিপস

বিয়ের সাজে ১০টি মহামূল্যবান টিপস

বিয়ে বাঙালি মেয়েদের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। তাই বিয়ের সবকিছু হ‌ওয়া চাই অত্যন্ত নিখুঁত এবং পরিপাটি। অন্য সবকিছু বাদে বিয়ের সাজটা অনন্য হ‌ওয়া চায়। সুন্দর সাজ আপনার ব্যক্তিত্বকে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলে। তাই যারা সামনে বিয়ের পিড়িতে বসতে যাচ্ছেন তাদের জন্য এই লেখাটি খুব উপকারী হবে বলে আশা রাখি। নিচের ১০টি টিপস আপনাকে বিয়ের দিন চমৎকারভাবে ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করবে।

১. হেলদি ডায়েট

স্বাস্থ্যকর খাবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিজের শরীরকে সুন্দর এবং সতেজ রাখতে স্বাস্থ্যকর খাবারের বিকল্প নেয়। তেমনি বিয়ের মত একটি গুরুত্বপূর্ণ দিনে সঠিক খাদ্যাভ্যাস আপনাকে দিতে পারে সুন্দর লোক। তাই বিয়ের অন্তত তিন থেকে ছয় মাস আগে থেকে হেলদি ডায়েট নির্বাচন করুন যাতে বিয়েতে আপনার স্কিন হেলদি এবং সতেজ থাকে।

২.শারীরিক ব্যায়াম এবং ইয়োগা

শারীরিক ব্যায়াম এবং ইয়োগা নিজের শরীরকে যেমন চাঙ্গা রাখে তেমনি মানসিকভাবে আপনাকে শক্তশালি করে। নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম এবং ইয়োগা নিজের শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমানোর পাশাপাশি নিজেকে আকর্ষণীয় করে তোলে।

৩. ত্বকের যত্ন

নিজের ত্বকের যত্ন নেওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। ত্বকের যত্নের জন্য নিয়মিত আলাদা সময় বের করে নিন। মশ্চারাইজিং করুন মিয়ম করে। এছাড়াও প্রচুর পানি এবং ফলমূল খান যাতে করে ত্বক উজ্জ্বল এবং সতেজ থাকে। প্রতি সপ্তাহে অন্তত একবার এক্সফলিয়েট এবং স্ক্রাবিং করুন। এতে চেহারার উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়।

৪. আন্ডার গার্মেন্ট নির্বাচন

সঠিক এবং নিজের শরীরের উপযোগী আন্ডার গার্মেন্টে নির্বাচন করুন। এতে আপনার ড্রেস ফিট হবে এবং আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়বে। আন্ডার গার্মেন্ট সঠিক না হলে আপনি অস্বস্তি বোধ করবেন যার ফলে পুরো বিয়ের অনুষ্ঠান আপনার কাছে অর্থহীন মনে হবে।

৫. ম্যানিকিওর পেডিকিওর

আপনার শরীরের প্রতিটি অঙ্গের সৌন্দর্য্য সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। তাই শরীরের অন্যান্য অংশের পাশাপাশি আপনার হাত এবং পায়ের যত্ন নেওয়াও উচিৎ। তাই নিয়মিত সময় করে হাত এবং পায়ের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করতে ম্যানিকিওর এবং পেডিকিউর করে নিন।

৬. মেক আপ এবং হেয়ার এক্সপার্ট নির্বাচন

বিয়ের দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে মেক আপ এবং হেয়ার স্টাইল। তাই নিজের ব্যাক্তিত্বের সাথে মানানসই হবে এমন মেক আপ এবং হেয়ার স্টাইল নির্বাচন করুন। অযথা ট্রেন্ডের পিছনে না দৌড়ে আপনার পছন্দ অনুযায়ী একজনকে নির্বাচন করুন যে আপনাকে চিনে এবং যার সাথে আপনি সাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। এক্সপার্টকে জানিয়ে দিন আপনি কেমন সাজ পছন্দ করেন এবং কি ধরনের প্রসাধনী সামগ্রী ব্যবহার করবেন।

৭. মেহেদী

আমাদের দেশে এখন প্রায় বিয়েতে আলাদা মেহেদীর প্রোগ্রাম হয়। আবার অনেকেই খুব কাছের মানুষদের নিয়ে ঘরোয়া ভাবে পালন করেন। যে ভাবেই অনুষ্ঠান করেন না কেন কেমিক্যাল দেয়া মেহেদী পরিহার করবেন। দরকার হলে ঘরে বানানো মেহেদী করবেন। মেহেদী আর্টিস্টকে বলে দিন আপনার পছন্দের ডিজাইন।

৮. হলুদ

হলুদের ক্ষেত্রেও অতিরিক্ত হলুদ ব্যবহার পরিহার করুন। অতিরিক্ত হলুদের ব্যবহার অনেক সময় সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই পরিমিত হলুদ ব্যবহার করুন।

৯. জুয়েলারি

আপনার পোশাকের সাথে মানানসই হবে এমন জুয়েলারি নির্বাচন করুন। অযথা ভারী জুয়েলারি পরবেন না। এতে করে বিয়ের পুরোটা দিন আপনার ভারী জুয়েলারির‌ কারণে অস্বস্তি লাগবে এবং বিয়ের মজাটা উপভোগ করতে পারবেন না।

১০. জুতা

সঠিক জুতা নির্বাচন অত্যন্ত দরকারি। আপনার পোশাক এবং নিজের স্বাচ্ছন্দের দিকে নজর দিয়ে জুতা নির্বাচন করুন। জুতা আগে থেকেই পরে দেখবেন যাতে করে পায়ের সাথে জুতা ফিট হয়। সঠিক মাপের জুতা না হলে পায়ে ফোসকা পড়ে যেতে পারে। তাই জুতার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করবেন। হাই হিল অথবা ফ্ল্যাট যেটাতে সাচ্ছন্দ্যবোধ করেন সেটি নির্বাচন করেন।

Comments
No comment yet